কলকাতা রবিবার, ২২ মে ২০২২, ০৭:৫৮ ( PM )
চতুর্থ স্তম্ভ: ৫ মে ২০২১, ৫ মে ২০২২
কলকাতা টিভি ওয়েব ডেস্ক
  • প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ৬ মে, ২০২২, ১০:০০:৫৩ পিএম
  • / ১৬৪ বার খবরটি পড়া হয়েছে
  • • | Edited By:

৫ মে ২০২১৷ শপথ নিয়েছিলেন তৃতীয়বারের জন্য বাংলার মুখ্যমন্ত্রী, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেদিন বলেছিলেন, রাজনীতির কথা নয়, অসামান্য জয়ের কথা নয়৷ বলেছিলেন করোনার সঙ্গে লড়তে হবে, দ্বিতীয় ওয়েভে ভরা মরসুমে বাংলার নেত্রী, শত্রুকে চিহ্নিত করেছিলেন। তার আগে ২ মে গণনা হয়ে গিয়েছে৷ ফলাফল সবার জানা৷ তবুও মনে করাই, মমতা ২১৩, মোদী ৭৭ আর আব্বাস ভাইজান ১। দলের কথাই নেই, লড়াই তো ছিল মোদি–শাহ বনাম মমতার৷ সেই লড়াইয়ে সংখ্যালঘু ভোট কেটে, বিজেপির বৈতরিণী পার করার মহান দায়িত্ব নিয়েছিলেন মান্নান – সেলিম – আব্বাস৷ প্রকৃত অর্থে ২০২১ এ বাংলার নির্বাচন ছিল এই ক’জনের লড়াই৷ আর আপামর মানুষের রায় ছিল বিজেপির বিরুদ্ধে৷ এক্কেবারে নিশ্চিত রাজনৈতিক রায়৷ বিজেপিকে না৷ উল্টোদিকে ভরসার মুখ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ ভোট উজাড় করে পড়েছিল তাঁর ঝোলায়।

মমতা, নির্বাচন চলাকালীন বারবার বলেছিলেন ডাবল সেঞ্চুরির কথা, বলেছিলেন জিতব৷ তাঁর জেনারেলরা? হাতে গোনা কয়েকজনকে বাদ দিলে নিজের আসনেও জিতবেন, এমন আশা করছিলেন না। এমন মন্ত্রীও আছেন, যিনি সেদিন হোয়াটস অ্যাপ করছিলেন৷ ভায় লাগছে ভাই, কী হবে? অন্যদিকে মন্ত্রিসভায় কোন পোর্টফোলিও কে কে পাবেন, তাই নিয়ে আকচা আকচি শুরু হয়ে গিয়েছিল৷ এক ঝাঁক দলবদলু, রূদ্রনীল ঘোষের মতো পরিচিত গিরগিটি, টলিউডেরই, কিসমত চমকে যাওয়ার লক্ষ্যে, কুচুবুলুর দল, আড়ালে থেকে মেঘনাদের মত টাকা আর প্রয়োজনীয় সবকিছু যুগিয়ে যাওয়া, কেয়া ভাও এর দল তখন ২০০ পার তো বটেই, ২২০ না ২৪০৷ তাই নিয়ে বাজি লড়ে যাচ্ছেন৷ অমিত শাহ, মোদি দিল্লি ফিরে গিয়েছেন৷ শপথ গ্রহণের দিন বাংলায় থাকবেন, জানিয়েই গিয়েছেন। এবং এতকিছুর পরে বাংলা পরিষ্কার জানালো, নো ভোট টু বিজেপি৷ মোদি শাহ ৭৭, মমতা ২১৩, সেলিম ০, মান্নান ০, আব্বাস ১। শপথ নিয়েই মমতা বললেন, করোনার বিরুদ্ধে লড়তে হবে, এখন কোনও সময় নষ্ট না করে মানুষের পাশে যাও৷ কাগজ খুলে দেখুন, প্রথম বৈঠক নবান্নে বিষয় করোনা, বিষয় ভোট পরবর্তী অশান্তি। বিবৃতি ফ্রম অমিত শাহ? মোদি? নেই। দলবদলে বাংলার বিশ্বাসঘাতকেরা? ঘরে ঢুকে গিয়েছেন। ক’দিন পর থেকেই কুচুবুলু, মামণিরা, যাঁরা মেক আপ নিয়ে, আলো করে দাঁড়িয়ে থাকতেন অমিত শাহ, দিলীপ ঘোষের আশে পাশে৷ তাঁরা আবার মেক আপ নিয়েছেন বটে, কিন্তু এবার মেগা সিরিয়ালের ফ্লোরে৷ রাজনীতি? ওহ কোন চিড়িয়া কা নাম হ্যায়? বিজেপির হেস্টিং এর বিরাট অফিস তখন ভূতবাংলো৷ রাজ্য দফতরে ঝাড়ু পড়ছে না৷ মাঠে কেবল একলা জগাই, ধনখড় সাহেব। তো এই ছিল ৫ মে ২০২১ এ বাংলার ছবি, মাত্র এক বছর আগে।

গতকাল ছিল ৫ মে ২০২২৷ আসুন দেখা যাক একবছর পরে ছবিটা কেমন? একবছর ধরে বিজেপি ক্ষয়েছে৷ দলবদলুদের একাংশ কান ধরে, নাকে ক্ষত দিয়ে দলে ফিরেছে৷ ফেরার অপেক্ষায় আছে৷ ফেরার তোড়জোড় করছে৷ একে তাকে ধরছে। টলিগঞ্জের ছবি? বিজেপি ডাকলে একজনও যাবেন? সন্দেহ আছে। নেড়া বেলতলায় ক’বার যায়? যে হাতে গোনা কয়েকজন বুদ্ধিজীবি জুটেছিল, তারা ইদানিং তৃণমূলেরও হাতে গোনা কিছু বুদ্ধিজীবির লগে লগে ঘুরছেন৷ সংবাদপত্রের যে সাংবাদিকরা নিদান হেঁকেই দিয়েছিলেন, তাঁরা সে সব ভুলে মেরে বলছেন, আমি তো বলেইছিলাম৷ অবশ্য এনারা সেই ২০১১ থেকেই একই ভূমিকায়, একই অভিনয় বার বার করে চলেছেন। আদি বিজেপি আর নব্য বিজেপির মধ্যে, ক্রুশেড চলছে বললে কম বলা হবে৷ আজ নেতা গিয়ে হাত ধরাচ্ছেন তো কাল চেয়ার ছোঁড়াছুঁড়ি চলছে, পদত্যাগ চলছে৷ ইতিমধ্যেই বিজেপির ৭৭, ৭০ হয়ে গিয়েছে৷ খবর আছে, পাক্কা খবর আছে, ২০২৪ এ লোকসভার নির্বাচনের আগে তা নাকি ৪০-এর তলায় চলে যাবে, কী করে? জানি না।

আসলে এটা সেই নহলে পে দহলার খেলা, খুব নৈতিক নয়, তবে ভগবান শ্রীকৃষ্ণের এবং চাণক্যের সায় আছে। কিন্তু তিনটে খেলা জারি আছে, প্রথম খেলা পাগলা জগাই, ধনখড় সাহেবের, তিনি একই মেজাজে, আমাদের ট্যাক্সের পয়সায়, বাংলার সবথেকে বড় প্রাসাদে থেকে, মুলো, বাঁধাকপি, পালং শাক খেয়ে, খেলে যাচ্ছেন, প্রতিটা বিষয়ে রাজ্যকে, রাজ্য প্রশাসনকে, মূখ্যমন্ত্রীকে বিব্রত করেই চলেছেন। দ্বিতীয় খেলা মোদি – অমিত শাহের, এমন পরাজয়ের জ্বালা ভুলতে পারছেন না, অতএব ইডি পাঠাও, সিবিআই পাঠাও, ভিজিলেন্স লাগিয়ে দাও পিছনে, প্রতিদিন জেরা হোক, খবর হোক, একটা পারসেপসন তৈরি হোক, সিবিআই, ইডি ডাকছে মানেই, ডাল মে কুছ তো কালা হ্যায়। এবং ওই একই মোদি–শাহ বাংলাকে ভাতে মারতে চাইছেন, জিএসটি র টাকা দেব না, কী করবি কর৷ অন্য রাজ্যকে ঘুরিয়ে স্পেশ্যাল প্যাকেজ দেব৷ বাংলাকে দেব না৷ কী করবি কর৷ এই বাংলায় বসে তার শাকরেদ, কাঁথির খোকাবাবু বা দিলীপ ঘোষ, সেই পরিকল্পনাকে আরও কতটা কার্যকরি করে তোলা যায়, তার চেষ্টা করে যাচ্ছেন৷ নিয়মিত প্রচেষ্টার ফলে বিভিন্ন প্রকল্পে বরাদ্দ কমছে৷ ওনারা বাংলায় বসে, বাংলার ক্ষতি করে উল্লসিত।

তৃতীয় খেলা অত্যন্ত গোপনে, মাথায় বসে কিছু শিল্পপতি, কিছু পানপরাগ খেয়ে থুতু ফেলার দল, তাদের সঙ্গে হাত মেলানো কিছু সংবাদপত্রের মালিক, সাংবাদিক, তাদের সঙ্গে থাকা কিছু আমলা, কিছু পুলিশ কর্তা এবং কিছু বিশ্বাসঘাতক, যারা এখনও চিহ্নিত নয়, তারা পরিকল্পনা করে চলেছেন৷ অপারেশন ২০২৪৷ বাংলা থেকে যে ভাবে হোক ২৪/২৮ টা আসন চাই৷ তার প্রস্তুতি চলছে। বিভিন্ন ভাবে, কোথাও দাঙ্গা লাগিয়ে দিয়ে, কোথাও কোনও ঘটনাকে হঠাৎই এক আলাদা চেহারা দিয়ে, কোথাও তলার সারির তৃণমূল নেতাদের লোভ, বখরার ভাগাভাগি, স্থানীয় গোষ্ঠিবাজী কে কাজে লাগিয়ে কিছু ঘটনা তৈরি করার, এবং এইরকম ঘটনা যাতে প্রত্যেক জেলায়, বিশেষ করে সংখ্যালঘু অধ্যুষিত জেলায় ঘটানো যায়, তার পরিকল্পনা করা হচ্ছে, সঙ্গে পাকা মাথা, পুলিশ, প্রশাসনের লোকজন, সাংবাদিক, আর টাকা জোগানোর লোক আছে, যত দিন গড়াবে, তত এরকম ঘটনা বাড়বে, ফায়দা তোলার জন্য তৈরি খোকাবাবু অ্যান্ড কোম্পানি৷ দিল্লি থেকে সেই নীল নকশার অনুমোদনও আসছে। জানেন না, মুখ্যমন্ত্রী? মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানেন না, এই খেলার খবর? ধনখড়ের খেলা বোঝা যায়, মোদি – অমিত শাহের ভাতে মারা পরিকল্পনাও প্রকাশ্যে৷ তার বিরুদ্ধে প্রকাশ্যেই লড়ছে বাংলা, লড়ছেন মমতা। কিন্তু এই গোপন নীল নকশা, এই সাবোটাজ? এই ভেতর থেকে আঘাত করার ষড়যন্ত্রের কথা জানেন না?

জানেন, সবটা না জানলেও অনেকটাই জানেন৷ অনেককেই চিহ্নিত করেছেন৷ এই লড়াইটাকে খুব তাড়াতাড়ি প্রকাশ্যেই এনে ফেলতে চান তিনি৷ তার আগে ঘর গোছানোর ডাক দিলেন মমতা৷ হ্যাঁ গত বছর শপথ নিয়ে প্রথম কাজের কথা বলেছিলেন, করোনার বিরুদ্ধে লড়াই। এ বছরে ইন্ডোর স্টেডিয়ামে নাম করে, নাম ধরে হুঁশিয়ারি দিলেন, জানালেন তাঁর নজর আছে, দুর্নীতি হচ্ছে৷ দুর্নীতির সঙ্গে জড়িত নেতাদের প্রত্যেক হাল হকিকতের খবর তাঁর কাছে আছে৷ তিনি প্রকাশ্যে জানিয়ে দিলেন, এবার জিরো টলারেন্স, এবার রেখে ঢেকে নয়, পরিষ্কার ব্যবস্থা নেওয়া হবে৷ এই কথা সব্বার সামনে বললেন৷ এই কথা ক্যাবিনেটে বলেছেন৷ এই কথা দলের কোর কমিটিতে বলছেন৷ কারণ মমতা জানেন, নীচের তলার এই দুর্নীতি, লখিন্দরের লোহার বাসরঘরের সেই ছিদ্র, যেখান দিয়ে কালনাগিনী ঢুকবে, ঢোকার চেষ্টা করছেন।

এই একই সমস্যার মুখোমুখি হয়েছিলেন জ্যোতি বসু, বারবার বৈঠকে বলতেন, বিনম্র হন, মানুষের কাছে যান, না কোনওদিনও নাম নিয়ে বলতে পারেননি, বলতে পারেননি, ওহে আরামবাগের রত্ন, এবার থামো, গতকাল ইন্ডোর স্টেডিয়ামে সেই কাজটা করলেন মমতা, দলের লোকজন কেবল নয়, সাংবাদিকদের বসিয়েই নাম করলেন তাদের, যারা দলের মধ্যে গোষ্ঠী তৈরি করছেন, বিভিন্ন দুর্নীতির কেন্দ্র তৈরি হচ্ছে তাদের ঘিরে, হ্যাঁ প্রকাশ্যেই বললেন, বিজেপি, সি পি এম, কংগ্রেস আমি দেখে নেবো, আপনারা নিজেদের সামলান। হ্যাঁ তৃতীয়বার শপথ নেবার এক বছর পর, আবার প্রথম শত্রু কে চিহ্নিত করতে ভুল করেননি, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ওদিকে হিসেব কষে সেই ৫ তারিখেই হাজির ছোতা মোটা ভাই, উসকানি দিতে, আবার সিএএ র কথা তুলতে, যেসব ষড়যন্ত্রের মাথারা জুটেছে, তাদের কিছুটা অক্সিজেন দিতে, তো বক্তৃতা দেওয়ার শুরুতেই বললেন, কিঁঊ আয়া ম্যাঁয়, এক সাল বাদ? বক্তৃতা শেষ হয়ে গেল৷ বিজেপি নেতারা, সাংবাদিকরাও সেই প্রশ্নের জবাব জানার জন্য, শোনার জন্য, ধৈর্য ধরে বসেছিলেন, কিঁউ আয়া অমিত শাহ, এক সাল বাদ? না উনি বলেননি, প্রকাশ্যে কি বলা যায়? যে ভাইসকল, আমি এসেছিলাম, এই বাংলার বিরুদ্ধে এক ষড়যন্ত্রের সলতে পাকাতে, দাঙ্গা লাগাতে, অশান্তি তৈরি করতে। এসব কি বলা যায় প্রকাশ্যে? তাই বলেননি, উত্তর মেলেনি, অমিত শাহ, দেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, আখির কিঁউ আয়েঁ এক সাল বাদ?

আর্কাইভ

এই মুহূর্তে

Weekly horoscope: মীন রাশির জাতকদের জন্য কেমন হবে এই সপ্তাহ
রবিবার, ২২ মে, ২০২২
Weekly horoscope: কুম্ভ রাশির জাতকদের জন্য কেমন হবে এই সপ্তাহ
রবিবার, ২২ মে, ২০২২
Dilip Ghosh: ক্ষমতার কাছে থাকতেই বিজেপি ছাড়লেন অর্জুন, কটাক্ষ দিলীপের
রবিবার, ২২ মে, ২০২২
Weekly Horoscope: মকর রাশির জাতকদের জন্য কেমন হবে নতুন সপ্তাহ
রবিবার, ২২ মে, ২০২২
Weekly horoscope: ধনু রাশির জাতকদের জন্য কেমন হবে এই সপ্তাহ
রবিবার, ২২ মে, ২০২২
Weekly horoscope: বৃশ্চিক রাশির জাতকদের জন্য কেমন হবে এই সপ্তাহ
রবিবার, ২২ মে, ২০২২
Weekly horoscope: তুলা রাশির জাতকদের জন্য কেমন হবে এই সপ্তাহ
রবিবার, ২২ মে, ২০২২
Arjun Singh: তৃণমূলে যোগ দিয়েই অধিকারীদের বাণ অর্জুনের
রবিবার, ২২ মে, ২০২২
Abhishek Banerjee: ৩০ মে শ্যামনগরের সভায় নেতাদের ঐক্যের বার্তা দেবেন অভিষেক?
রবিবার, ২২ মে, ২০২২
Arjun Singh: সুখী তৃণমূল, একমঞ্চে অর্জুন-জ্যোতিপ্রিয়-পার্থ
রবিবার, ২২ মে, ২০২২
Arjun Singh: মমতার নেতৃত্বে দেশজুড়ে বড় আন্দোলনের অপেক্ষা, নিজের ঘরে ফিরে বললেন অর্জুন
রবিবার, ২২ মে, ২০২২
Arjun Singh: বিজেপি অর্জুনহীন, পার্থ-জ্যোতিপ্রিয়র উপস্থিতিতে তৃণমূলে ব্যারাকপুরের সাংসদ
রবিবার, ২২ মে, ২০২২
তৃণমূলের বিধায়ক, বিজেপির সাংসদ অর্জুনের রাজনীতির চাকা ঘুরেছিল কংগ্রেসে
রবিবার, ২২ মে, ২০২২
Arjun Singh: অভিষেকের হাত ধরে তৃণমূলে অর্জুন, ৩ বছর পর ঘরওয়াপসি
রবিবার, ২২ মে, ২০২২
Balurghat: শ্বশুরবাড়ির দরজায় ধরনায় বসলেন ঘর থেকে বিতাড়িত বধূ
রবিবার, ২২ মে, ২০২২
© R.P. Techvision India Pvt Ltd, All rights reserved.
Developed By KolkataTV Team